মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ১০:১৫ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ-
রাজৈর নিউজের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম নিত্যনতুন সকল সংবাদ পড়তে আমাদের সাথেই থাকুন
সর্বশেষ সংবাদঃ-
তুচ্ছ ঘটনায়ঃরাজৈরে ইউপি মেম্বারকে পিটিয়ে হত্যা ঘুর্ণিঝড় বুলবুল এর প্রভাবেঃ শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি, লঞ্চ ও স্পীডবোট সার্ভিস বন্ধ দক্ষিন আফ্রিকায় ডাকাতের দেয়া আগুনে দগ্ধ শিবচরের আরেক জনের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু, এ ঘটনায় নিহত-২ মাদারীপুর ডিবি পুলিশ বিআইডব্লিউটিয়ের ড্রেজারে ব্যবহৃত সরকারি ৫ হাজার ১’শ লিটার তেলসহ একজন চোরাকারবারিকে গ্রেপ্তার শিবচরে জনতার পুলিশ কার্যক্রম শুরু জেএসসি পরীক্ষাঃরাজৈরে অসদুপায় অবলম্বনের অভিযোগে কেন্দ্র সচিবকে শোকজ ও হল সুপারকে শোকজসহ অব্যাহতি স্বেচ্ছাসেবকলীগের কেন্দ্রীয় নেতার বাড়ীতে দূর্ধর্ষ ডাকাতি রাজৈরে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে জয়যাত্রা টেলিভিশনের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত সৃষ্টিকর্তার সেই মানুষ আর এ মানুষ, আসল মানুষ ক’জনা টেকেরহাট বন্দরে মাদ্রাসার ম্যানেজারে বিরুদ্ধে ছাত্রী ধর্ষনের অভিযোগ /গ্রেফতার-১, জিজ্ঞসাবাদের জন্য শিক্ষিকা আটক
শিবচরে ভ্রাম্যমান আদালতের ইলিশ সংরক্ষন অভিযানে অসাধু জেলেদের হামলা

শিবচরে ভ্রাম্যমান আদালতের ইলিশ সংরক্ষন অভিযানে অসাধু জেলেদের হামলা

Shibchar Fish nidhon

add 720x200

প্রদ্যুৎ কুমার সরকারঃ মাদারীপুরের শিবচরে ভ্রাম্যমান আদালতের ইলিশ সংরক্ষন অভিযানে অসাধু জেলেরা হামলা চালালে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে পুলিশ ১০ রাউন্ড ফাকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। হামলাকারীরা ডাকাত ডাকাত বলে হামলা চালায় বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় পুলিশ একজনকে আটক করেছে। অভিযানে ১ হাজার মিটার জাল বিনষ্ট করে ও ৬টি মাছ ধরার ট্রলার ফুটো করে ডুবিয়ে দেয়া হয়।

জানা যায়, মা ইলিশ সংরক্ষনে গত ৯ অক্টোবর থেকে ২২ দিন মা ইলিশ নিধনে সরকারের নিধেধাজ্ঞা রয়েছে। কিন্তু সরকারের এই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পদ্মা নদীর জেলার শিবচরের বন্দরখোলার কাজীসুরা এলাকায় মা ইলিশ ধরার মহোৎসব শুরু হয়। চলছিল কেনা বেচার হাট । অনেকে এনিয়ে ফেসবুকে লাইভও দেয়। রবিবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এ এলাকায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আসাদুজ্জামান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল নোমানসহ ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে প্রকাশ্যে বেচাকেনার সময় ৮ জনকে ইলিশ মাছ ও বিপুল পরিমান জালসহ আটক করে বিভিন্ন মেয়াদে সাজাও দেয়। সোমবার বিকেল থেকে কাজীরসুরা এলাকায় আবারো প্রকাশ্যে মাছ ধরা ক্রয় বিক্রয় শুরু হলে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ আসাদুজ্জামান, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা এটিএম সামসুজ্জামানের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান শুরু করে। ভ্রাম্যমান আদালত প্রায় ৩০ কেজি ইলিশ জব্দ করে ১ জেলেকে আটক করে, ১ হাজার মিটার জাল পুড়িয়ে দেয় ও ৬টি ট্রলার ফুটো করে পানিতে ডুবিয়ে দেয়। সন্ধ্যার পর অসাধু জেলেরা সংঘবদ্ধ হয়ে দেশীয় অস্ত্র স্বস্ত্র নিয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের উপর হামলা চালায়। একপর্যায়ে পুলিশ ১০ রাউন্ড গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নেয়। এনিয়ে এ পর্যন্ত ৩৯ জেলেকে আটক করে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

প্রত্যক্ষদর্শী রওশাদ এ হাওলাদার বলেন, এ এলাকায় নিষেধাজ্ঞার পর থেকেই দেদারসে ইলিশ ধরা ক্রয় বিক্রয় হাটের মতো শুরু হয়। হামলার এক পর্যায়ে ডাকাত ডাকাত বলে জেলেরা দেশীয় বিভিন্ন অস্ত্র নিয়ে প্রশাসনের উপর হামলা চালায়। পরে পুলিশ ফাকা গুলি চালিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নেয়।

সহকারী কমিশনার (ভূমি ) আল নোমান বলেন, এ এলাকায় প্রকাশ্যে ইলিশ নিধন, বেচা কেনা চলছিল। অভিযানে ১ হাজার মিটার জাল বিনষ্ট করে ও ৬টি মাছ ধরার ট্রলার ফুটো করে ডুবিয়ে দেয়া হয়। একপর্যায়ে অসাধু জেলেরা হামলা চালাতে আসলে ফাকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করা হয়।

Comments

comments

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

add 720x200

Leave a Reply




add 300x600

উন্নয়ন সহযোগীতায়ঃ- সেভেন ইনফো টেক