মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০, ০৩:০৩ অপরাহ্ন

নোটিশঃ-
রাজৈর নিউজের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম নিত্যনতুন সকল সংবাদ পড়তে আমাদের সাথেই থাকুন
সর্বশেষ সংবাদঃ-
শিবচরে পদ্মা সেতু দেখতে আসা যুবক মটরসাইকেল উল্টে নিহত ঈদের খরচ বাঁচিয়ে শিবচরে গুচ্ছগ্রাম বাসীদের মাঝে সেমাই ও বিরিয়ানী বিতরন ইউএনওর সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে মাদারীপুরে ৪০ গ্রামে ঈদ-উল ফিতর উদযাপন মুকসুদপুরে চেয়ারম্যানের রাইচ মিল থেকে ৫ জুয়াড়ী আটক রাজৈরে কুমার নদের পাড় থেকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার,পরিবারের দাবি পরিকল্পিত হত্যা,স্বামী আটক রাজৈরে শাজাহান খান এমপির পক্ষ থেকে ঈদ উপহার বিতরণ রাজৈরের শাখারপাড়ে প্রতিবন্ধী পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী ঈদ উপহার দিলেন পৌর মেয়র শামীম নেওয়াজ শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ি রুটে ফেরি চলাচল শুরু, পারাপার করা হচ্ছে জরুরী এ্যামবুলেন্সসহ ব্যাক্তিগত গাড়ি ও পন্যবাহী ট্রাক, পথে পথে পুলিশের ব্যারিকেড টেকেরহাট বন্দরে লকডাউন উপেক্ষা করে ঈদ কেনাকাটায় মানুষের ঢল পশ্চিম গগনে বাঁকা চাঁদ দেখলেই পবিত্র ঈদুল ফিতরের ঈদ
শিবচরে বাড়ির পাশের বাগান থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার, শরীরে আঘাতের চিহৃ

শিবচরে বাড়ির পাশের বাগান থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার, শরীরে আঘাতের চিহৃ

Shibchar Murder

add 720x200

শিব শংকর রবিদাসঃমাদারীপুরের শিবচরে বাড়ির পাশের বাগান থেকে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। লাশের নাক ও চোখে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। শরীর ছিল রক্তেভেজা। পরিবারের দাবী পূর্ব শক্রতার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যা করা হয়েছে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের ফালু মাদবরকান্দি গ্রামের কালাম ঘরামীকে (৩০) বুধবার রাতে তার চাচাতো ভাই হারুন ঘরামী কথা আছে বলে ঘর থেকে ডেকে নিয়ে যায়। দীর্ঘ সময় পার হলেও কালাম আর ঘরে ফিরে আসেনি। ভোররাতে সাহরির সময় তার পরিবারের লোকজন হারুনন ঘরামীর কাছে কালাম ঘরামীর কোথায় আছে জানতে চাইলে হারুন কথা এড়িয়ে গিয়ে জানি না বলে দেয়। পরে বৃহস্পতিবার ভোরে বাড়ির পাশের বাগানে কালাম ঘরামীর মরদেহ দেখতে পায় এলাকাবাসী। পরিবারের লোকজন এসে মরদেহটি দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে লাশটি উদ্ধার করে। লাশের শরীর ছিল রক্তে ভেজা। নাক ও চোখে রয়েছে আঘাতের চিহৃ বলে পুলিশ জানায়। নিহত কালাম ঘরামী ফালু মাদবরকান্দি গ্রামের নূরু ঘরামীর ছেলে। নিহতের চাচাতো ভাই হারুন ঘরামীদের সাথে তাদের জমি সংক্রান্ত বিরোধ থাকায় কালামকে ঘর থেকে ডেকে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে তার পরিবার অভিযোগ করেন।

নিহত কালাম ঘরামীর বাবা নুরু ঘরামী বলেন, জমাজমি নিয়ে তার তার ভাতিজা হারুন ঘরামীর সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ চলছিল। গতকাল রাত সাড়ে ১১টার সময় হারুন আমার ছেলেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর সকালে বাগানের ভিতর তার লাশ পাওয়া যায়। হারুনই আমার ছেলেকে হত্যা করেছে। আমি এর বিচার চাই।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী এসআই রবিউল বলেন, আমরা লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করেছি। লাশের নাক ও চোখে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। আঘাতের ওই স্থান থেকে শরীরে রক্ত ঝরেছে।

শিবচর থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ বলেন, পরিবার ও এলাকাবাসী খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

Comments

comments

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

add 720x200

Leave a Reply




add 300x600

উন্নয়ন সহযোগীতায়ঃ- সেভেন ইনফো টেক