বুধবার, ০৫ অগাস্ট ২০২০, ০১:৩৮ অপরাহ্ন

নোটিশঃ-
রাজৈর নিউজের ওয়েব সাইটে আপনাকে স্বাগতম নিত্যনতুন সকল সংবাদ পড়তে আমাদের সাথেই থাকুন
সর্বশেষ সংবাদঃ-
টেকেরহাট কোরবানির পশুরহাটে পৌর মেয়রের মাস্ক বিতরণ দেশের ত্রাণ কার্যক্রম আগের চেয়ে অনেক সহজলভ্য হয়েছে-চীফ হুইপ নূর-ই আলম চৌধুরী টেকেরহাটে কোরবানীর পশুর হাট জমে উঠলেও ক্রেতা সংকট, দুশ্চিন্তায় ব্যবসায়ী ও খামারীরা রাজৈরে প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় কিশোরীকে কুপিয়ে আহতের ঘটনায় সেই বখাটে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার রাজৈরে প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় ছাত্রীকে কুপিয়ে জখম করেছে বখাটে রাজৈরে খালে ভেসাল জাল পাতা নিয়ে বিরোধ,বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যা,আহত ১ রাজৈরে টেকেরহাট বন্দরে নিষিদ্ধ পিরানহা বিক্রির দায়ে মাছ ব্যাবসায়ীকে জরিমানা খালেদা জিয়া যদি জেলে থাকতো তাহলে তিনি বলতেন আমিতো জেলে কি করে করোনা, বন্যা ও নদী ভাঙ্গনে মানুষের পাশে আমি যাবো- চীফ হুইপ নূর-ই আলম চৌধুরী রাজৈরে রাস্তা,বসতবাড়িসহ ফসলি জমি কুমার নদে বিলীন ও বন্যায় শতশত ঘরবাড়ি প্লাবিত,স্কুলে আশ্রয় নিয়েছে অর্ধশতাধিক পরিবার দানশীল এবং পরোপকারী ব্যক্তি হিসেবে চিনতো লোকে!কোটি টাকা নিয়ে উধাও
দানশীল এবং পরোপকারী ব্যক্তি হিসেবে চিনতো লোকে!কোটি টাকা নিয়ে উধাও

দানশীল এবং পরোপকারী ব্যক্তি হিসেবে চিনতো লোকে!কোটি টাকা নিয়ে উধাও

News pic (18)

add 720x200

রাজৈর নিউজ ডেক্সঃ দানশীল এবং পরোপকারী ব্যক্তি হিসেবে চিনতো লোকে,এটা ছিলো প্রতারণার কৌশল । মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার আমগ্রাম ইউনিয়নের বাসাবড়ি মোহাম্মদীয়া ইসলামী মাদ্রাসা ও এতিম খানার শিক্ষক ও মসজিদের ইমাম মোঃ আবু সাঈদ ভুইয়া (৪৫) কে। গরু- ছাগল,ঘর-বাড়ি,মসজিদ ও সরকারী চাকরী এছাড়াও ব্যবসার পাটনারের কথা বলে এলাকাবাসীর সাথে নতুন কৌশল অবলম্বন করে কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে উধাও হয়ে গেছে সে। আবু সাঈদ পিরেজপুর জেলার নাজিরপুর উপজেলার খালেক ভুইয়ার ছেলে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ১৬ জুলাই বৃহস্পতিবার । এ ভুয়া শিক্ষক ১১ মাস আগে আব্দুল ওহাব আলী শেখের বাড়িতে তার স্ত্রী ও ৩ সন্তান নিয়ে থাকতেন বলে জানায় ভুক্তভোগীরা ।

ভুক্তভোগী এলাকাবাসীরা জানান, আবু সাঈদ উপজেলার আমগ্রাম ইউনিয়নের বাসাবড়ি মোহাম্মদীয়া ইসলামী মাদ্রাসা ও এতিম খানায় শিক্ষক ও মসজিদের ইমাম পরিচয়ে আমাদের এলাকার মানুষের চোখে ধুলা দিয়ে কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে উধাও হয়ে গেছে । তিনি আমাদের এখানে এসে মসজিদের ইমামতি করতেন এবং বিভিন্ন স্থানে মাদ্রাসার শিক্ষক পরিচয় দিয়ে চলতেন। কথনও কখনও রাজনৈতিক পরিচয় ব্যবহার করতেন। গত সোমবার তার থাকার ঘরে তালাবদ্ধ করে স্ত্রী ও ছেলেকে ডাক্তার দেখানের কথা বলে পালিয়ে যায়। আবু সাইদ ভুইয়া প্রথমে কৌশলে পালিয়ে যায়। এখানে থেকে তিনি অন্যের ফসলি জমি চাষ করতেন এবং মানুষের আস্থা অর্জনের জন্য করোনা মহামারিতে দরিদ্রদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করতেন । এটা ছিলো তার প্রতারণার একটা কৌশল । ঘর দিবেন ,মসজিদ উঠিয়ে দিবেন,জমি ও ব্যবসা করতে টাকা দেওয়ার কথা বলে তিনি গ্রামের সহজ সরল মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিতেন। তার প্রতারণার হাত থেকে বাদ যায়নি বৃদ্ধ আজিরনও। আজিরন বেগম বলেন, আমার একটা ভাঙ্গা ঘর আছে। তা দেখে হুজুর আমাকে বলেন আনে ভাঙ্গা ঘরে থাকেন কেনো ? আমি আপনাকে একটা নতুন ঘর তৈরী করে দিব। সেই ঘরের দাম ৪ লক্ষ টাকা। কিন্ত তা আনতে খরচ হবে কাউকে বলবেন না। আমাকে ৬০ হাজার টাকা দেন। এ বলে আমার কাছ থেকে টাকা নিয়েছে।

ভুক্তভোগী আব্দুল ওহাব আলী শেখ বলেন, আমার দুটি ঘর ছিলো। একটি ঘর হুজকে থাকতে দিয়েছি । আমি ঢাকা থাকি। আমাকে ব্যবসায় প্রচুর টাকা দেওয়ার কথা বলে ছেলে, স্ত্রীর ও আমার কাছ থেকে ৩ লক্ষ টাকা নিয়েছে ।

মতিয়ার চোকদার বলেন, ইসলামি ফাউন্ডিশনের পক্ষ থেকে মসজিদ করে দিবে বলে আমাদের কাছ থেকে ৪ লক্ষ টাকা নিয়েছে। মসজিদ নির্মাণের কাজও শুরু করেছিল। এটা ছিল তার লোক দেখানো কৌশল। তিনি আমাদের জানান,আরো ৩টি মসজিদ করে দিয়েছি । মহিষমারী গ্রামে আমার তৈরী করা হবে । কোটালিপাড়া একটা মসজিদের উদ্ধোধন হবে। এখন লেকের কাছে শুনি সে পালিয়েছে । তাকে ফোন দিলে সে বলে আমি ফরিদপুর আছি । তার পর থেকে ফোন বন্ধ। সরকারি চাকরি দেওয়ার কথা বলে নরারকান্দী গ্রামের এক পশু ডাক্তারের ছেলেকে চাকরির কথা বলে ৩ লক্ষ টাকা নিয়েছে।

মেসার্স চৌধুরী রাইচ মিলের মালিক ও রাজৈর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রষুন চৌধরী জানায়, প্রথমে আমাদের কাছ থেকে দুই লক্ষ ১৫ হাজার টাকার চাল নেয় । পরে সে আমাকে দুইলক্ষ ২০ হাজার টাকা দেয়। সর্বশেষ দুই লক্ষ ১০ হাজার ৪০০ টাকার চাল নিয়ে সে পালিয়ে যায়।

বাসাবাড়ী মোহাম্মদীয়া ইসলামী মাদ্রাসার সুপার হাফেজ আবু হালিম জানান, আবু সাঈদ আমাদের মাদ্রাসার এমপিওভুক্ত কোন শিক্ষক না। আমাদের এখানে সকালে বিকালে এসে বসত এবং কিছু ছাত্র পড়াত। আমাকে স্বাক্ষী রেখে কেউ কোন টাকা পয়সা দেয়নি। ফলে বিষয়টি আমার জানা নেই। আমিও শুনেছি।

রাজৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ সাদী জানান ,এ ব্যাপারে সাবরিনা মাহমুদ নামে একজন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। তদন্ত এগিয়ে চলছে। দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া হবে।।

রাজৈর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহানা নাসরিন জানান , বিষয়টি আমার জানা নেই। খোঁজ নিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Comments

comments

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

add 720x200

Leave a Reply




add 300x600

উন্নয়ন সহযোগীতায়ঃ- সেভেন ইনফো টেক