বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫৮ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ-
রাজৈর নিউজ অনলাইন পত্রিকার পক্ষ থেকে আপনাদের স্বাগতম। নিত্যনতুন সকল সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।ফেসবুক পেইজ থেকে আমাদের নিউজে চোখ রাখুন:- https://www.facebook.com/rajoirnews  তাছাড়া সংবাদ এর ভিডিও দেখুন ইউটিউব থেকে  BanglaNews Tube
সর্বশেষ সংবাদঃ-
মাদারীপুরের নদী বেষ্টিত ধুরাইলের শিক্ষার বাতিঘর খ্যাত একটি বিদ্যালয় ও একজন শিক্ষকের কথা “সৃজনশীল তোমার খোঁজে” প্রতিযোগিতার মাধ্যমে শিবচরে মেধা বিকাশে নবপ্রভার ব্যতিক্রম আয়োজন সৌদি আরবে ব্রয়লার বিস্ফোরনে শিবচরের ১ যুবকসহ নিহত ৪ রাজৈরে পাইকপাড়া ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক সংগঠনের শুভ উদ্বোধন ও ত্রান সামগ্রী বিতরণ স্বামীর চাপাতির কোপে স্ত্রী গুরুতর আহত শিবচরে শিশু ভাতিজাকে টয়লেটের মেঝেতে পুতে রাখলো চাচী ও চাচাতো বোন, গ্রেপ্তার শেষে ৩ দিন পর উদ্ধার রাজৈরে সম্পত্তি হাতিয়ে নিতে স্বামীকে পাগল সাজিয়ে পাবনা হাসপাতালে ভর্তির অভিযোগ শিবচরে শিক্ষার্থীদের মাঝে মাক্স বিতরন শিবচরে অটো ভ্যান চাপায় এক শিশু নিহত রাজৈরে পৌরসভা কার্যালয়ে রহস্যজনক চুরি, থানায় অভিযোগ
লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে হৃদয় কাজী আমার কোলেই পানি পানি করতে করতে মারা গিয়েছে

লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে হৃদয় কাজী আমার কোলেই পানি পানি করতে করতে মারা গিয়েছে

Hridoy pic 1 copy

add 720x200

বিনয় জোয়ারদারঃলিবিয়া থেকে সাগর পাড়ি দিয়ে অবৈধভাবে ইতালি যাওয়ার সময় বাংলাদেশী যুবক হৃদয় কাজীর(২০) মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। সে মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলার ঘোষালকান্দি গ্রামের মোশারফ কাজীর ছেলে।

পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, মোশারফ কাজীর ২ ছেলের মধ্যে হৃদয় কাজী ( পাসপোর্টে হৃদয় হাসান) বড়। নিজের ভবিষ্যৎ গড়ার আশায় গত রমজানের আগে মুকসুদপুর উপজেলার চরপ্রসন্নদী গ্রামের হাকিম দালালের মাধ্যমে ৪ লক্ষ ২০ হাজার টাকার চুক্তিতে লিবিয়ায় পৌঁছায় হৃদয়। সেখানে দালালরা তাকে আটকে রেখে অতিরিক্ত ১ লক্ষ টাকা আদায় করে। সেখান থেকে ইলিয়াস দালালের মাধ্যমে ৩ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার চুক্তিতে ইতালি নিয়ে যাওয়ার কথা হয়। ইলিয়াসের বাড়ীও মুকসুদপুর উপজেলার বড়দিয়া গ্রামে। সেই চুক্তি মোতাবেক গত ১৯ জুলাই গেম হয়। প্লাষ্টিকের বোর্টেং মোট ৬১ জনকে নিয়ে ইতালির উদ্যেশ্যে রওনা হয়। অনেক দেশের সীমান্তে পৌঁছানোর পরও নিরাপত্তরক্ষীদের কারনে কোন দেশেই তারা নামতে পারেনি। এভাবেই প্রচন্ড রোদের মধ্যে সাগরে অনেক সময় ভাসতে থাকার কারনে হিট স্ট্রোকে ১৭ জন বাংলাদেশীসহ মোট ৩০ জনের মৃত্যু ঘটে। বাকীরা অসুস্থ অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে। পরে তুরস্কের কোষ্টগার্ড এসে তাদের উদ্ধার করে। হৃদয়ের লাশ তুরস্কে আছে বলে জানিয়েছেন তার বন্ধু ও স্বজনরা।


একই বোর্টে থাকা হৃদয় কাজীর বন্ধু হৃদয় শেখ জানায়, হৃদয় কাজী আমার কোলেই পানি পানি করতে করতে মারা গিয়েছে। আমিও অসুস্থ হয়ে চিকিৎসাধীন আছি। এছাড়াও একই উপজেলার ছাতিয়ানবাড়ী গ্রামের সাধন বিশাস,হোসেনপুর এলাকার জিন্নাত শেখ এবং শংকরদী গ্রামের সাগর সিকদারও চিকিৎসাধীন আছে।

এদিকে হৃদয় কাজী মারা যাওয়ার খবরে তার বাবা মোশারফ কাজী জ্ঞান হারিয়ে পরে আছেন। মা কোমেলা বেগম কান্নাকাটি করছেন আর বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন। স্বজন এবং প্রতিবেশীদের কান্নায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

হৃদয় কাজীর কাকা মিরাজ কাজী জানান, আমার ভাতিজা ইতালি যাওয়ার পথে মারা গেছে। এখন আমাদের একটাই দাবি ওর লাশটা যেন শেষবারের মত একবার দেখতে পারি।

Comments

comments

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

add 720x200

Leave a Reply




add 300x600

উন্নয়ন সহযোগীতায়ঃ- সেভেন ইনফো টেক