সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১১:১৭ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ-
রাজৈর নিউজ অনলাইন পত্রিকার পক্ষ থেকে আপনাদের স্বাগতম। নিত্যনতুন সকল সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।ফেসবুক পেইজ থেকে আমাদের নিউজে চোখ রাখুন:- https://www.facebook.com/rajoirnews  তাছাড়া সংবাদ এর ভিডিও দেখুন ইউটিউব থেকে  BanglaNews Tube
সর্বশেষ সংবাদঃ-
আওয়ামীলীগের প্রার্থীতা উন্মুক্ত ইউপি নির্বাচনে : শিবচরে ১৪৬ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল, ৫ প্রার্থীকে জরিমানা চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনঃ রাজৈরে ৬ টি ইউনিয়নে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন ২৭৪ জন,দলীয় প্রতীক না থাকায় বেড়েছে প্রার্থী সংখ্যা হেলিকপ্টারে গ্রামের বাড়ী ফিরলেন কুয়েত প্রবাসী মেহেদি হাসান, উৎসুক জনতার ভীড় শিবচর হাসপাতালে যোগ হলো প্রায় ৬ কোটি টাকা ব্যয়ে জিন এক্সপার্ট মেশিন রাজৈরে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় ভুমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর হস্তান্তর রাজৈরে পৌর আওয়ামী লীগের আনন্দ মিছিল অন্যকে ফাঁসাতে গিয়ে বিদেশী পিস্তল ও গুলি রেখে শিবচরে পুলিশের জালে ৪ যুবক রাজৈরে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মাঝে হুইলচেয়ার-গাছসহ উপহার বিতরণ বাংলাদেশের গনতন্ত্র ও নির্বাচন প্রক্রীয়া প্রশ্নবিদ্ধ করতে বিএনপি নীলনকশা করছে,নির্বাচন বর্জন করছে -শিবচরে চীফ হুইপ রাজৈরে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ
রাজৈরে ভ্যানের জন্য যুবককে কুপিয়ে হত্যা

রাজৈরে ভ্যানের জন্য যুবককে কুপিয়ে হত্যা

Mithu 1

add 720x200

বিনয় জোয়ারদারঃ মাদারীপুরের রাজৈর থেকে শুক্রবার সকালে অজ্ঞাত এক যুবকের (৩৫) রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করেছিল পুলিশ। শুক্রবার রাতেই নিহত যুবকের পরিচয় মিলেছে। তার নাম মিন্টু শেখ। সে উপজেলার খালিয়া গ্রামের মৃত রজব আলী শেখের ছেলে এবং পেশায় একজন ভ্যানচালক। নুরপুর-কদমবাড়ী গ্রামীণ সড়কের নারায়নপুর নামক স্থানের রাস্তার পাশ থেকে তার রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করা
হয়েছিল ।


পারিবারিক, পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, মিন্টু শেখ বৃহষ্পতিবার বিকালে ভ্যান নিয়ে বের হয়ে আর বাড়ী ফেরেনি। শুক্রবার সকালে নুরপুর-কদমবাড়ী গ্রামীণ সড়কের রাজৈর উপজেলার কদমবাড়ী ইউনিয়নের দক্ষিন নারায়নপুর গ্রামের রাস্তার পাশে তার রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়া হয় । পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর মর্গে প্রেরন করেছে । ধারনা করা হচ্ছে বৃহষ্পতিবার রাতের কোন এক সময়ে তাকে হত্যা করা হয়েছে। লাশের মাথায় ধারালো অস্ত্রের একাধিক কোপের চিহ্ন রয়েছে এবং মুখমন্ডল ইটের আঘাতে থেতলানো অবস্থায় ছিল। শুক্রবার সারাদিন পর রাতে তার পরিচয় পাওয়া গেছে।

নিহত মিন্টুর স্ত্রী নাজনীন বেগম জানান, শুক্রবার রাত ৯ টার দিকে ফোন করে বলেছিল আমি ৪ জন যাত্রী নিয়ে গজারিয়া যাচ্ছি। এদের নামিয়ে দিয়ে চলে আসব। তারপর থেকে তার আর কোন সন্ধান না পেয়ে রাতে শুনি তার লাশ পাওয়া গেছে।

মিন্টুর মা সুফিয়া বেগম জানান, বৃহষ্পতিবার দুপুরে আমার সাথে কথা বলে গেছে। শুক্রবার রাতে এ খবর পেয়েছি। আমি আমার ছেলে হত্যার বিচার চাই।

রাজৈর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ সাদিক জানান, আমরা শুক্রবার সকালে অজ্ঞাত এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছিলাম। পরে তার পরিচয় জানা গেছে। সে রাতে ভ্যান চালাত। তার হত্যাকারীদের দ্রুত খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে।

Comments

comments

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

add 720x200

Leave a Reply




add 300x600

উন্নয়ন সহযোগীতায়ঃ- সেভেন ইনফো টেক