মঙ্গলবার, ১৬ Jul ২০২৪, ০৭:৫৭ পূর্বাহ্ন

নোটিশঃ-
রাজৈর নিউজ অনলাইন পত্রিকার পক্ষ থেকে আপনাদের স্বাগতম। নিত্যনতুন সকল সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।ফেসবুক পেইজ থেকে আমাদের নিউজে চোখ রাখুন:- https://www.facebook.com/rajoirnews  তাছাড়া সংবাদ এর ভিডিও দেখুন ইউটিউব থেকে  BanglaNews Tube
সর্বশেষ সংবাদঃ-
রাজৈরের কদমবাড়িতে রাতের আধারে দোকানঘর নির্মাণ করে জায়গা দখলের অভিযোগ কালকিনিতে পাবলিক লাইব্রেরি উদ্বোধন কালকিনিতে দু’পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ ॥ নিহত-১ ’ আহত-৯ স্বাধীনতার প্রকৃত ইতিহাস বারবার বিকৃত করার চেষ্টার বিরুদ্ধে শিবচরের মুক্তিযুদ্ধের ভাস্কর্যগুলো দৃষ্টান্ত-স্বাস্থ্যমন্ত্রী আবেদ আলীর ছেলে সিয়ামকে ডাসার উপজেলা ছাত্রলীগ থেকে অব্যাহতি সালিশে জুতাপেটাকে কেন্দ্র করে দুই সন্তানের পিতার আত্মহত্যা ডাসারে মানব পাচার চক্রের মূলহোতা গ্রেফতার ঢাকা-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ের শিবচরে তিনটি ট্রাকের সংঘর্ষ, ২ ঘন্টা যান চলাচল বন্ধ শিবচরে পাঠাও রাইডের ২ ছিনতাইকৃত মটরসাইকেল উদ্ধার, ২ ছিনতাইকারী গ্রেফতার বরগুনায় সড়ক দুর্ঘটনায় শিবচরের নিহত ৭ জনের দাফন সম্পন্ন, দায়ীদের সব্বোর্চ শাস্তির দাবী
সালিশে জুতাপেটাকে কেন্দ্র করে দুই সন্তানের পিতার আত্মহত্যা

সালিশে জুতাপেটাকে কেন্দ্র করে দুই সন্তানের পিতার আত্মহত্যা

111

add 720x200

শিবচর: সালিশে গ্রাম্য মাদবরের রায়ে জুতাপেটাকে কেন্দ্র করে মাদারীপুরের শিবচরে ইলিয়াছ মৃধা নামের দুই সন্তানের জনক আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেবর ভাবীর মারামারিকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়।
সরেজমিনে জানা যায়, জেলার শিবচর উপজেলার কুতুবপুরের ৯নং ওয়ার্ডে কাদির মৃধার ছোট ছেলে দিনমজুর ইলিয়াছ মৃধার সাথে তার সৌদি প্রবাসী বড় ভাই আক্কাস মৃধার স্ত্রী তাছলিমার সাথে কথা কাটাকাটি থেকে মারামারি হয়। রবিবার সকালে তাছলিমার পায়ে একটি আলপিনের খোচা লাগাকে কেন্দ্র করে ঘটনাটি সংগঠিত হয়। তাছলিমার সন্দেহ ওই পিনটি ইলিয়াছই তার সেন্ডেলে গেথে রাখে। তাৎক্ষনিকভাবে তাছলিমা বিষয়টি তার প্রবাসী স্বামীকে জানায়। তাছলিমা ও তার স্বজনরা স্থানীয় গ্রাম্য মাদবর আলাউদ্দিন খানকে জানালে সে দ্রুত ওই বাড়িতে ছুটে আসে। আলাউদ্দিন খান ওই বাড়িতে এসে ঘটনার বিচারে তাৎক্ষনিকভাবে সালিশ বসায় । আলাউদ্দিন খান কাদির মৃধাকে তার ছেলে ইলিয়াছকে ১০০ জুতার বাড়ি দেয়ার নির্দেশ দেয়। কাদির মৃধা ইলিয়াছকে জনসম্মুখে জুতাপেটা করে। এতে ইলিয়াছ খুদ্ধ হয়ে সাথে সাথেই বাজারে গিয়ে বিষ কিনে এনে সবার সামনে ঘরের ভিতরে গিয়ে বিষপান করে। এসময় ইলিয়াছ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে তার মৃত্যু হয়। সোমবার দুপুরে মাদারীপুর সদর হাসপাতালের মর্গে লাশটি ময়নাতদন্ত শেষে ্ওই গ্রামে এনে জানাজা শেষে গ্রামের কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়।

0
নিহতের স্ত্রীর স্বজনরা জানান, আলাউদ্দিন খান ও আর তাছলিমার অবৈধ সম্পর্ক ছিল। সেজন্যই আলাউদ্দিন খান খবর পেয়ে এসেই সাথে সাথে বিচার বসিয়ে ওর বাবাকে ১শ জুতাপেটা করায়। আর এতেই লজ্জা পেয়ে সে আত্মহত্যা করেছে।
ইলিয়াছের স্ত্রী মিনু বেগম কাদতে কাদতে বলেন, সবার সামনে জুতাপেটা করায় সে লজ্জা পাইয়া মরছে। এহন আমার দুই মাইয়া নিয়া আমি কই যামু । কি খামু।
ভাবী তাছলিমা বেগম বলেন, ও আমার সেন্ডেলে পিন দিয়ে রাখলে আমি সকালে বিষয়টি শশুড় শাশুড়িকে জানাই। তারা আলাউদ্দিন খানকে জানায়। আমার দেবর হয়ে সে যেহেতু আমাকে অনেক মেরেছে তাই আমার শশুড়ই তাকে কয়েকটি জুতা দিয়ে বাড়ি মারে। এরপর সে বাজারে গিয়ে বিশ কিনে এনে খায়।
অভিযুক্ত গ্রাম্য মাদবর আলাউদ্দিন খান বলেন, ওরা আমাকে খবর দিয়ে আনে। এসময় আরো অনেকে ছিল। আমি ওর বাবাকে এর বিচার করতে বললে সে কয়েকটি জুতাপেটা করে। এরপর সে বিষপান করে। আমি কোন রায় দেইনি বা জুতাপেটা করতে বলিনি।
শিবচর থানার এসআই মোঃ কাজী রিপন বলেন , এ বিষয়ে একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। জুতাপেটার বিষয়টি আমাদের জানা নেই।

Comments

comments

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

add 720x200

Leave a Reply




add 300x600

উন্নয়ন সহযোগীতায়ঃ- সেভেন ইনফো টেক